ইভেন্ট ব্লগিং বাংলা টিউটোরিরাল পর্ব ০১

ইভেন্ট ব্লগিং কি

অন্য সাধারন ব্লগিং এর মতই ইভেন্ট ব্লগিং এক ধরনের ব্লগিং। ইভেন্ট ব্লগিং একটি নির্দিষ্ট দিন , এক সাপ্তাহ বা এক মাসের জন্য হতে পারে। এক দিনের আপনার ব্লগে লক্ষ ট্রাফিক জেনারেট করার জন্য ইভেন্ট ব্লগিং অনন্য। খুব অল্প সময়ে আপনি খুব সহজেই বড় অংকের টাকা আয় করতে পারবেন । আপনি যদি ইভেন্ট ব্লগিং নিয়ে অবগত না থাকেন তবে আপনার কাছে এটি অবিশ্বাস্য মনে হতে পারে । আশা করছি এই পোষ্টটি পড়ার পর আপনার এই ভুল ধারনা কেটে যাবে । আসুন শুরু করা যাক ।

কেন ইভেন্ট ব্লগিং করবেন

ধরুন আজকে ঈদের দিন । আপনার কাছে ল্যাপ্টপ বা স্মার্টফোন আছে। আপনি স্বাভাবিকভাবেই আপনার বন্ধুদের মেসেজ পাঠিয়ে উইশ করবেন। কিন্তু আপনার কাছে মেসেজ রেডি নাই । আপনি গুগল এ সার্চ করবেন । EID MESSAGES, EID WISH ইত্যাদি ইত্যদি ।

এবার আপনার বন্ধুর কথা চিন্তা করুন তিনিও একই কাজ ই করবেন । এইবার পুরা মুসলিম বিশ্বের কথা চিন্তা করুন , কত শত কোটি মানুষ তার প্রিয়জঙ্কে বন্ধুবান্ধবকে উইশ করার জন্য মেসেজ খুজবে।

এবার আপনার ওয়েবসাইটের কথা চিন্তা করুন । আপনার ওয়েবসাইটটি যদি এসইও করে প্রথমে আনতে পারেন , সার্চ ইঞ্জিনে যদি প্রথমে থাকে তাহলে আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিটর সংখ্যা কেমন হতে পারে। আমি নিশ্চিত আপনি ভাবতে পারছেন না । জি হ্যা এটাই ইভেন্ট ব্লগিং।

আপনি ত মামা কোটিপতি হয়ে গেলেন । প্রতিদিন যদি এই পরিমান ভিজিটর ঢুকে একদিন আপনি গুগলরে ফেলাইয়া দিবেন ভাবতেছেন । হা হা ……। আসলে এরপরের দিন আপনার সাইটে ভিজিটর আসবে না । প্রায় শুন্যের কোটায় নেমে আসবে । ইভেন্ট ব্লগিং এর মজা অই একদিন বা এক সাপ্তাহ বা এক মাস ই পেতে পারেন । এরপর আর পাবেন না। তবে এর থেকে আয়কৃত টাকা চাইলে সারাবছর খেতে পারবেন

ইভেন্ট ব্লগিং বাংলা টিউটোরিরাল পর্ব ০১

আমি ইভেন্ট ব্লগিং করতে চাই কিন্তু টপিক্স খুজে পাই না

কি যে বলেন না ভাই, আচ্ছা এখন হচ্ছে নভেম্বর মাসের শেষ । আগামী মাসে কি কি ইভেন্ট আছে বলেন তো ? ক্রিষ্টমাস আছে আন্তর্জাতিকভাবে । থার্টি ফার্ষ্ট নাইট আছে। আরে ভাই এইগুলা তো বড় টপিক্স । আমি ছোট মানুষ । ছোট খাট কোন টপিক্স বলেন না ভাই ।

আগামী মাসে বাংলাদেশে কি কি আছে বলেন তো ? কই কিছু নাই তো । আপনি ভাই বোকার স্বর্গে বসবাস করছেন । আমাদের বুদ্ধিজীবি দিবস আছে বিজয় দিবস আছে এইগুলা নিয়ে সার্চ হবেই । বিজয় দিবসের জন্য অনেকেই বাংলাদেশের পতাকা ফেসবুক ওয়ালে দিবে। অনেকেই ওইদিন দেশ প্রেম দেখাইয়া কিছু হিস্ট্রি ঘাটাঘাটি করবে আবার অনেকেই কপি পেষ্ট মাইরা অনেক কিছু শেয়ার করবে। এখনো বুঝেন নাই , খাড়ান আপনারে আমি বুঝাই ।

আইচ্ছা বাঙ্গালাদেশে পরীক্ষা কয়টা কন তো ? এখনো বুঝেন নাই, আরে ভাই আগামী মাসে JSC , PSC পরীক্ষার রেজাল্ট দিবে । জনগন ধুমাইয়া সার্চ দিবে। আপনি থাকতে পারলেই কেল্লা ফতে।ওহ, পোলাপাইন এখন অনেক স্মার্ট। এখন তারা বিভিন্ন গ্রুপ করে, ফেসবুকে গ্রুপের কথা কইতেছি। ওই গ্রুপ গুলাতে সব টার্গেটেড পোলাপাইন । কিছুক্ষন আগে আমার ওয়ালে দেখালাম, একটা ইভেন্ট নাম হচ্ছে ভার্সিটি ভর্তি যুদ্ধ। এইগুলা টার্গেট করেন নারে ভাই ।

মাত্র কয়েকটা ইভেন্টের নাম বললেন আর কই

মিয়া আপনার মাথায় বুদ্ধি গেছে গা পুরাই।
চলে বিপিএল , আসবে আইপিএল , থার্টি ফার্শট নাইটে মানুষ কক্সবাজার যাইবো , ফুরফুর ফুর্তি করার লাইগা থুক্কু শোনার লাইগা। হোটেলের নাম জানে না, মারব গুগল সার্চ , কোথায় কোথায় কন্সার্ট হচ্ছে তার নাম জানার লাইগা সার্চ দিব , ওহ হো আগামী মাসে নতুন বছরের পর স্কুলে ভর্তির জন্য সেরা স্কুল গুলার নাম জানতে চাইয়া সার্চ দিব । আরো কত কি ?

এইত গেলে দেশের অবস্থা ! বিদেশে গেলে কি কম হবে ? বিশ্বে দেশের সংখ্যা কম না । এইটা একটা দেশ কে টার্গেট করেন তাহলেই হবে। আরো কাহিনি আছে আগামী মাসে বলিউডে নতুন মুভি মুক্তি পাইব ! নাম দিয়ে সার্চ হইব। নতুন মোবাইল বাইর হইব সেইটা লইয়া সার্চ মারব। টম ক্রুজ আগামী মাসে পর্ন মুভি !!! বাইর কইরা ফেলব সার্চ মারব আরো কত কি ! আগামী মাসে রিও দি জেনেরিও তে পরিবেশ বিদরা বসব । এটা নিয়েও সার্চ হইব
আর কইতে পারুম না ! এখন না বুঝলে আপনার জন্য ইভেন্ট ব্লগিং আসে নাই । আর যারা বুঝছেন তারা কিছুক্ষন জিরাই লন । এরপর আইতেছি

ইভেন্ট ব্লগিং কয়দিনের জন্য হতে পারে

আসলে এটা নির্ভর করে কত দিন চলবে সেটার উপর । অলিম্পিক নিয়ে করলে অলিম্পিক যতদিন চলে ততদিন, ক্রিষ্টমাস নিয়ে করলে একদিন বা দুইদিন হায়েষ্ট এক সাপ্তাহ । ঈদ নিয়ে করলে চাদ রাতেই শুধু বাজি ফুটব ।

ইভেন্ট ব্লগিং কতদিন আগে শুরু করা উচিত

ইভেন্ট ব্লগিং শুরু করার নির্দিষ্ট ডেট বলা আসলে কঠিন । কারন আপনার মতই অনেকেই এই কাজের জন্য বসে আছে। তবে এটলিস্ট গুগলকে ইন্ডেক্সিং এর সময় দিতে হবে। রেংকিং এ আনার জন্য টাইম দিতে হবে ।
নতুন ডোমেইনের ক্ষেত্রে কমপক্ষে ৪৫ দিন আগে শুরু করতে পারেন । পুরাতন ডোমেইনের ক্ষেত্রে ১৫/২০ দিন আগেই করা যায় ।

ইভেন্ট ব্লগিং বাংলা টিউটোরিরাল পর্ব ০১

আপনার জন্য কোন ইভেন্টটি প্রযোজ্য

ইভেন্ট যত বড় কম্পিটিশন তত বেশি। কোন ইভেন্টটি আপনার জন্য সেটা আপনাকেই নিশ্চিত করতে হবে, এর জন্য আপনার এসইও জ্ঞান ও অন্যান্য দক্ষতা উপর বিবেচনা করে ইভেন্ট নির্বাচন করুন ।

ইভেন্টের জন্য কিওয়ার্ড রিসার্চ

কি ওয়ার্ড রিসার্চের অনেক টুলস আছে। তার মধ্যে জনপ্রিয় টুলস গুগল কি ওয়ার্ড প্লানার । এটা ব্যবহার করতে পারেন । বর্তমানে কি ওয়ার্ড প্লানার এক্সাক্ট ভলিউমটা পেইডে যাওয়া ছাড়া দেখায় নাই। আর জানি অলরেডি বিকল্প পদ্ধতি আপনাদের কাছে আছে । সো সেখান থেকে কি ওয়ার্ড নির্বাচন করুন । অবশ্যই যে কান্ট্রির জন্য কি ওয়ার্ড নির্বাচন করতেছেন সেই কান্ট্রিতে গত বছর এই দিনে গুগল ট্রেন্ড দেখে নিবেন।

ইভেন্টের জন্য ডোমেইন নেম

এসইও এর ক্ষেত্রে গুগল বলে যদিও ডোমেইনের ভুমিকা নাই । আপনার কন্টেন্ট ভাল হলেই রেংক করবে । তবে ইভেন্ট ব্লগিং এর ক্ষেত্রে এক্সাক্ট ম্যাচ ডোমেইন নিতে পারেন । এতে ক্লিকের পরিমান বেড়ে যাবে । আর দ্রুত রেংক করতে সুবিধা হব।

আপনি চাইলে যে দেশের ইভেন্ট সে দেশের কান্ট্রি এক্সটেনশন ও নিতে পারেন । যেমন বাংলাদেশের জন্য ডট কম ডট বিডি।

ইভেন্টের জন্য হোষ্টিং নির্বাচন

যেহেতু একদিনেই অনেক ভিজিটর ঢুকবে তাই হোষ্টিং এর ব্যন্ডউইডথের দিকে খেয়াল রাখা উচিত। চাইলে ব্লগার ডট কম ও ব্যবহার করতে পারেন । যে কোণ কোম্পানির হোষ্টিং ব্যবহার করতে পারেন

writer: স্বপ্নের ফেরিওয়ালা

Leave a Reply